স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশের উন্নয়নের ফলে মানুষের গড় আয়ু এখন ৭৩ বছর

cnnbangla.com.bd: স্বাস্থ্যসেবা আইন চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, এ আইন খুব দ্রুত মন্ত্রিসভা ও সংসদে তোলা হবে।

রোববার (৮ ডিসেম্বর) দুপুর পৌনে ২টার দিকে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) ৩৯তম বিশেষ স্বাস্থ্য ক্যাডারে নিয়োগপ্রাপ্ত চিকিৎসকদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যারা এ আইন সংশোধনের দাবি জানিয়েছে, তাদের দাবি পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। এখানে আইন মন্ত্রণালয় ও স্টেকহোল্ডাররা জড়িত। পরিবর্তন করতে হলে তাদের মতামত নিতে হবে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশের বিরাট অর্জন। স্বাস্থ্যখাতে প্রধানমন্ত্রীর অভূতপূর্ব উন্নয়নের ফলে মানুষের গড় আয়ু এখন ৭৩ বছর। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাউথ সাউথ ও ভ্যাকসিন পুরস্কার পেয়েছেন। এটা আমাদের বিরাট অর্জন।

তিনি আরও বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে সরকার স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পেরেছে। শিশু মৃত্যুর হার কমিয়ে আনা, পোলিওমুক্ত দেশ, একশ মেডিক্যাল কলেজ, দেড়শ নার্সিং কলেজ-ইনস্টিটিউট, চার মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউট, ক্যানসার ইনস্টিটিউটসহ বহু প্রতিষ্ঠান এ সরকার করেছে। বর্তমানে ওষুধে স্বয়ংসম্পূর্ণ বাংলাদেশ। ৯৮ ভাগ ওষুধই দেশের চাহিদা পূরণ করছে। বাইপাস সার্জারি হচ্ছে।

কিডনি বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে একটি আইন পাস হয়েছে, যদি মৃত ব্যক্তির আত্মীয় অনুমোদন দেয়, তাহলে মৃত ব্যক্তির কিডনি দান করা যাবে। কিডনির কোনো ব্যবসা করা যাবে না। এ আইন বলবৎ রয়েছে।

শিশু যত্নে সরকার আন্তরিক জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, দেশের প্রতি জেলায় মা ও শিশু হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি জেলায় কাজ চলছে, পর্যায়ক্রমে বাকি জেলায় কাজ শুরু হবে।

এসময় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।